ঢাকা, ২৫ মার্চ, ২০১৯ || ১০ চৈত্র ১৪২৫
bbp24 :: বরেন্দ্র প্রতিদিন
৩৬

জীবনযাপনে পরিবর্তন এনে হৃদরোগমুক্ত থাকা সম্ভব

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০১৯  


শুধু খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাপনে পরিবর্তন এনে হৃদরোগ থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি পাওয়া সম্ভব। এই পদ্ধতি ব্যবহার করে ৩০ হাজারের বেশি হার্টের রোগী দশ বছরের বেশি সময় ধরে সুস্থ আছেন। বুধবার রিং ও বাইপাস ছাড়া হৃদরোগ চিকিৎসার পথিকৃৎ সাওল হার্ট সেন্টার বাংলাদেশের ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কবি মোহন রায়হান এ কথা বলেন। ‘সফলতার ১০ বছর’ স্লোগানে সাওল’র ১০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপিত হয় রাজধানী ঢাকার ২৬ ইস্কাটন গার্ডেন রোডের প্রধান শাখায়। একই সঙ্গে চট্টগ্রামের গোলপাহাড় মোড় শাখায় দিনব্যাপী ফ্রি চিকিৎসা পরামর্শ দেয়া হয়। উভয় শাখায় দুই শতাধিক রোগী এ সুবিধা গ্রহণ করেন। ঢাকায় সাওল মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সাওল-বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা কবি মোহন রায়হান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, সাওল চিকিৎসা পদ্ধতি বাংলাদেশে চালু ও গ্রহণযোগ্য করে তোলা ছিল বিরাট চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে গত এক দশকে ৩০ হাজারের বেশি হার্টের রোগীকে সাওল পদ্ধতিতে সুস্থ রাখা সম্ভব হয়েছে। অথচ দেশের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, একদিনের মধ্যে তাদের রিং পরানো বা বাইপাস করা না হলে বাঁচানো সম্ভব হবে না। তিনি বলেন, তেল হলো মানবদেহের জন্য বিষের মতো। যা তিল তিল করে আমাদের মৃত্যুর দিকে ধাবিত করে। এ কারণে সুস্থ থাকতে আমরা তেল ছাড়া খাবার রান্নার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছি।